রানার প্রতিবেদন : আগামী চার মাসের মধ্যে সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে কার্যকরী পদক্ষেপ না নেয়া হলে পাকিস্তানকে কালো তালিকাভুক্ত করা হতে পারে। এই মর্মে ইসলামাবাদকে চরম হুমকি দিল আন্তর্জাতিক অর্থ ব্যবস্থাপক সংস্থা ফিনাসিয়াল একশন টাস্ক ফোর্স (FTF)। যদি পাকিস্তান কালো তালিকাভুক্ত হয় তবে কোনও আন্তর্জাতিক আর্থিক সংস্থার কাছ থেকে আর কোনও সহায়তা পাবে না তারা।

আরও পড়ুন : কলকাতায় হুহু করে বাড়ছে পুরুষ যৌন কর্মী, আয়ও বাড়ছে যথেষ্ট


বর্তমানে চরম আর্থিক সঙ্কটের মধ্যে দিয়ে যাচ্ছে পাকিস্তান। হুহু করে বাড়ছে মুদ্রাস্ফীতি। জিনিসপত্রের দাম আকাশ ছোঁয়া। দেশে উন্নয়নের কাজ কার্যত মুখ থুবড়ে পড়েছে। ঋণের দায়ে জর্জরিত পাকিস্তানকে এখন পুরনো ঋণ শোধ করার জন্যই নতুন ঋণ নিতে হচ্ছে। ইসলামিক দেশগুলির কাছে অর্থ সাহায্যের জন্য হাত পেতেছেন ইমরান খান। এই অবস্থায় এই হুমকি ইসলামাবাদের ঘুম কেড়ে নিয়েছে। যদি বাস্তবিক কঠোর পদক্ষেপ নেয় এফটিএফ তবে দেশের অর্থনীতি গিয়ে পড়বে সখ্যাত সলিলে। এই অবস্থায় আদৌ দ্রুত সন্ত্রাসবাদী সংগঠনগুলির বিরুদ্ধে সত্যি কোনও কার্যকরী ব্যবস্থা নিতে পারবে সরকার? এই প্রশ্নই ভাবিয়ে তুলেছে গোটা দেশকে।

আরও পড়ুন : কলকাতায় হুহু করে বাড়ছে পুরুষ যৌন কর্মী, আয়ও বাড়ছে যথেষ্ট


পুলওয়ামা কাণ্ডের পর ,ভারত সরকার আন্তর্জাতিক মঞ্চকে ব্যবহার করে পাকিস্তানের ওপর চাপ বাড়াতে শুরু করেছে সন্ত্রাসবাদ প্রশ্নে। চাপের মুখে পাকিস্তান কিছু ব্যবস্থা নিলেও ভারত বারবার বলছে, অতীতেও এমন পদক্ষেপ নিয়েছে ইসলামাবাদ কিন্তু সেগুলো সবই লোক দেখানো। এবারে সত্যি সত্যি তারা সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে কার্যকরী ব্যবস্থা নিয়েছে সেটা আগে প্রমান করতে হবে। ইসলামাবাদ সম্প্রতি দিল্লির সঙ্গে কথা বলতে চেয়ে বার্তা পাঠিয়েছে কিন্তু দিল্লির সাফ কথা, পাকিস্তান সত্যি জঙ্গিদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিয়েছে, এটা প্রমান হলে তবেই আলোচনা সম্ভব, নচেৎ নয়।


রানারের খবর ভালো লাগলে Like করুন ‘ runnerbangla ‘ Facebook Page