রানার প্রতিবেদন : জঙ্গলমহলে দেবগ্রামের পর এবার বর্ধমানের কেতুগ্রামে ঘটলো অবাঞ্ছিত ঘটনা। যে ঘটনাকে কেন্দ্র করে আজ সকাল থেকে এলাকায় উত্তেজনা তৈরি হয়েছে। গতকাল বিজয়া দশমীর দিন খুব বৃষ্টি থাকায় বুধবার প্রতিমা বিসর্জনের সিধান্ত হয়। সেই অনুযায়ী গতকাল রাতে মন্দিরেই থেকে যায় মূর্তি। আজ সকালে দেখা যায় কে বা কারা দুর্গার মাথা কেটে নিয়ে গেছে। সঙ্গে সঙ্গে এলাকায় খবর ছড়িয়ে পড়ে, প্রবল চাঞ্চল্য তৈরি হয় এলাকায়। বেশ কিছুটা পর মন্দির প্রাঙ্গণ থেকে দূরে একটি পুকুর পাড়ে মাথাটি পাওয়া যায়, তবে সেটি আছার দিয়ে ভেঙে রেখে গেছে দুষ্কৃতীরা।


কেতুগ্রাম থানার নিরোল পন্ঞ্চয়েত এলাকায় শ্রীরামপুর গ্রামের এই পূজাটি ৩০০ বছরের প্রাচীন। পূজাটি সরকার বাড়ি নামে এক প্রাচীন পরিবারের পুজো হলেও ধীরে ধীরে এই পুজো হয়ে উঠেছে সার্বজনীন। ওই গ্রামের অন্যতম সেরা আকর্ষণ এই পুজো। গ্রামের সব মানুষ অংশ নেন এই পূজায়। ঘটনা ঘিরে হৈচৈ শুরু হওয়ার পর পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে পৌঁছয়। ইতিমধ্যে স্থানীয় থানায় এনিয়ে এফআইআর দায়ের করা হয়েছে। কারা এসে এই কান্ড করলো তা নিয়ে পুলিশ এখনো কিছু বলতে পারেনি। তবে এই ঘটনার প্রেক্ষিতে ক্ষুব্ধ এলাকার মানুষ।