trump sexual harassment

রানার প্রতিবেদন : বিখ্যাত লেখিকা সেই সঙ্গে অতীব সুন্দরী ই জ্যে ক্যারলের অভিযোগ ঘিরে এখন তুলকালাম আমেরিকা। নিউইয়র্কের একটি প্রসিদ্ব ম্যাগাজিনে প্রকাশিত এক নিবন্ধে, তার এক ভয়ংকর অভিজ্ঞতার কথা লিখেছেন ক্যারল। সেই ভয়াবহ যৌন আতঙ্কের ঘটনায় খলনায়কের নাম মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। ঘটনাটি ঘটেছে ১৯৯৫ সালে। এই ঘটনায় ক্যারল লিখেছেন, ট্রাম্প কতটা বিকৃত যৌন কাতর ব্যক্তি।


ক্যারল লিখেছেন, ১৯৯৫ সালে ট্রাম্প ছিলেন আমেরিকার অন্যতম ধনী ব্যক্তি। তারসঙ্গে প্ৰথমে পরিচয় তারপর বন্ধুত্ব হয় ক্যারলের। তিনি লিখেছেন, একদিন ট্রাম্প তাঁকে নিয়ে যান নিউইয়র্কের একটি ডিপার্টমেন্টাল স্টোরে। ক্যারল লিখেছেন,” একটি ঘরে আচমকাই ট্রাম্প আমাকে পেছন দিক দিয়ে চেপে ধরে, তারপর আমাকে দেওয়ালে ঠেসে ধরে রাখে, আমি তখন ছটফট করছি, আচমকাই ট্রাম প্যান্টের জিপ খুলতে শুরু করে, আঁতকে উঠি, এবার ও মরিয়া হয়ে ধর্ষণের চেষ্টা করতেই, আমি কোনও রকমে ছিটকে বেরিয়ে আসি স্টোর থেকে।”


ম্যাগাজিন প্রকাশিত হতেই তুলকালাম শুরু হয়েছে আমেরিকা জুড়ে। যদিও ট্রাম্পের বিরুদ্ধে এই অভিযোগ নতুন নয়, এই নিয়ে মোট ১৫ জন মহিলা ট্রাম্পের বিরুদ্ধে ধর্ষণ কিংবা যৌন হেনস্থার অভিযোগ আনলেন। রাজনৈতক দল, স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন থেকে নেট দুনিয়ায় এখন প্রবল হৈচৈ। বলা হচ্ছে, এই ধরনের বিকৃত রুচির একজন লোককে রাষ্ট্রপতির চেয়ারে বসিয়ে রাখাটা মার্কিনি রুচি সংস্কৃতির বিরোধী। যদিও ট্রাম্প এই ঘটনা অস্বীকার করেছেন। শুধু অস্বীকার করাই নয়, ক্যারল বলে জীবনে কাউকে চিনতেন কিনা তাও মনে করতে পারছেন না তিনি। বলেন, এই নামের কোনও মহিলাকে কোনও দিন চিনতেন না তিনি।