রানার প্রতিবেদন : রাজ্যে এনআরসি করবে বিজেপি, প্রতিদিন নিয়ম করে তারা বলে আসছে সেকথা। যদিও তৃণমূলকে ক্ষমতা থেকে সরিয়ে বিজেপি যদি ক্ষমতায় আসে একমাত্র তবেই রাজ্যে এনআরসি সম্ভব, নতুবা নয়, কারন এই কাজের জন্য রাজ্য সরকারের সরাসরি যোগদান ও প্রত্যক্ষ সহযোগিতা প্রয়োজন। আর তৃণমূল যে সেই পথে হাটবে না, তা ইতিমধ্যেই তারা পরিষ্কার করে দিয়েছে। তাহলে একমাত্র বিজেপি যদি ক্ষমতায় আসে তাহলেই এরাজ্যে এনআরসি সম্ভব। এখন প্রশ্ন হচ্ছে যদি বিজেপি ক্ষমতায় আসে তাহলে কি তারা শেষপর্য্ন্ত এনআরসি করবে ? যদি করে তাহলে কিভাবে নিজেকে প্রমাণ করবেন আপনি ভারতীয় ? দেখে নিন, কি কি তথ্য এবং শংসাপত্র আপনার দরকার।


এনআরসির জন্য প্রয়োজনীয় কাগজ :-
১) জন্মের শংসাপত্র বা ব্যার্থ সার্টিফিকেট
২) আপনার জমির দলিল
৩) বোর্ড কিংবা উনিভার্সিটার সার্টিফিকেট
৪) ব্যাংক/এলআইসি/পোস্ট অফিসের তথ্য
৫) বিবাহিত মহিলার ক্ষেত্রে সার্কেল অফিসার/গ্রাম পঞ্চায়েতের সেক্রেটারি সার্টিফিকেট
৬) ভোটার কার্ড
৭) রেশন কার্ড

এর বাইরেও যদি আইনিভাবে বৈধ সার্টিফিকেট থাকে তবে সেটাও গ্রাহ্য হবে।


যে নথির কথা বলা হয়েছে সে সবই ১৯৭১ সালকে ভিত্তিবর্ষ ধরা হয়েছিল অসমের ক্ষেত্রে। অন্য রাজ্যের ক্ষেত্রে ভিত্তিবর্ষ কি হবে তা এখনো স্পষ্ট নয়। যদি ৭১ সালকেই ভিত্তিবর্ষ রাখা হয় তাহলে সমস্ত নথি হতে হবে ৭১ সালের আগে। যদি আপনি ৭১ এর পরে জন্মে থাকেন কিংবা অন্য কোনও কারণে আপনার সেই সব নথি নেই, সেক্ষেত্রে প্রমান দিতে হবে আপনার অবিভাবকের সেই সব নথি ১৯৭১ সালের আগেসমস্ত নথি পেশের দরকার নেই, যেকোনও একটি নথি পেশ করতে পারলেই তাকে ভারতীয় নাগরিক এবং সেই সঙ্গে তার সন্তান-সন্ততিরাও পেয়ে যাবেন নাগরিক অধিকার। যদিও বিজেপি নেতৃত্ব দাবি করছেন, তারা সংসদের আগামী অধিবেশনে নাগরিকত্ব বিল পাশ করাবেন সংসদে। যদিও বিজেপি রাজয়সভাতে সংখ্যায় কম, তবুও তারা আত্মবিশ্বাসী বিল পাশ করবার ব্যাপারে। যেমন করে কাশ্মীরে ৩৭০ ধারা প্রত্যাহার এবং তিন তালাক বিল পাশ হয়েছে। বিজেপির আরো দাবি নাগরিকত্ব বিল পাশ হলে হিন্দু, খ্রিস্টানদের জন্য আর এনআরসি কার্যকর হবে না। শুধুমাত্র যারা অনুপ্রবেশকারী তাদেরকে এনআরসি করে চিহ্নিত করা হবে।