রানার প্রতিবেদন : রাজভবনে পা রেখেই সরকারের সঙ্গে সংঘাতে জড়িয়ে পড়েছেন রাজ্যপাল ধনকর। রেডরোডে শারদীয় কার্নিভাল নিয়ে সেই সংঘাত এখন তুঙ্গে। গতকালই রাজ্যপাল তোপ দেগেছেন সরকারের বিরুদ্ধে। তার অভিযোগ, যেভাবে কার্নিভালে চার ঘণ্টা ধরে তাকে ব্ল্যাক আউট করে রাখা হয়েছিল তা নজিরবিহীন ঘটনা যা রাজ্যপালকে সরাসরি অসম্মান।

আরও পড়ুন : এনআরসি হলে ভয় নেই শরণার্থীদের, ভয় অনুপ্রবেশকারীদের, জেনে নিন আপনি কোন দলে

রাজ্যপালের আক্রমণকে গুরুত্বহীন করে দেখাতে গতকাল থেকেই উপেক্ষার নীতি নিয়েছে রাজ্য সরকার। গতকালই পার্থ চট্টোপাধ্যায় বলেছেন, “ওনার যা খুশি উনি বলুন, সব কথার উত্তর দিতে হবে, এমন কোনও মানে নেই।” একথা বলে তৃণমূল সরকার বোঝাতে চাইছে, রাজ্যপালের মন্তব্য ঠিক কতটা গুরুত্বপূর্ন তাদের কাছে।


এই সংঘাতের আবহকে আরও জটিল করে তুললো রাজ্যপালের নিরাপত্তা নিয়ে নতুন সিদ্ধান্ত। গতকাল রাতেই কেন্দ্রীয় সরকারের পক্ষ থেকে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়, রাজ্যপালের নিরাপত্তার জন্য আর রাজ্য পুলিশ রাখা হবে না। এখন থেকে তার নিরাপত্তার দায়িত্ব নেবে কেন্দ্রীয় নিরাপত্তা বাহিনী।

আরও পড়ুন : দিদি বললেন, অভিষেক নোবেল পেয়েছে, যাচ্ছি এখন ওর বাড়িতেই, সকলেই বাকরুদ্ধ

স্বাধীনতার পর এই প্রথম এধরণের ঘটনা ঘটতে চলেছে। চিরদিন রাজভবনের দায়িত্ব সামলেছে রাজ্য পুলিশ। কেন্দ্রীয় সরকারের পক্ষ থেকে অবশ্য বলা হচ্ছে, যাদবপুর কাণ্ডের পর রাজ্যপালের নিরাপত্তার বিষয়টি নতুন করে খতিয়ে দেখার পর সিদ্ধান্ত হয়েছে, রাজ্যপালের নিরাপত্তা আরও কঠোর করা জরুরি। একারণেই কেন্দ্রীয় বাহিনীর সাহায্য নেওয়া হচ্ছে।